Home » কিভাবে ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করা যায় ?
ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন

কিভাবে ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করা যায় ?

ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করার সহজ পদ্ধতি:

আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে সহজ ভাষায় আপনি জানতে পারবেন কিভাবে ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করা যায় ।

আপনি কি অনলাইন এ টাকা উপার্জনের চিন্তা করছেন? তবে আপনার জন্য সবচেয়ে ফলপ্রসূ  মাধ্যম হচ্ছে ইউটিউব ।

আপনি নিশ্চই জানেন আজ দেশ বিদেশে লক্ষ লক্ষ ইউটিউবার রয়েছেন যারা শুধু তাদের ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে অনেক অনেক টাকা উপার্জন করছেন, এমনকি তাদের অন্য কোনো কাজ করার প্রয়োজন হচ্ছে না ।

আপনিও যদি এভাবে উপার্জন করার চিন্তা করে থাকেন থাহলে আপনাকে তো একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবেই পাশাপাশি ভালো ভিডিও আপলোডের জন্য পরিশ্রমও করতে হবে ।

এমনিতে ইউটিউব থেকে  টাকা উপার্জন করার পদ্ধতি তেমন কোনো কঠিন বিষয় নয় ,তবে এ সম্পর্কে কিছু সাধারণ তথ্য জানা থাকা জরুরী ।

তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক _

ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করার জন্য যা জানতে হবে:

  • কিভাবে ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করা যায়?
  • ইউটিউব কিভাবে টাকা দেয় বা ইউটিউবে কামানো টাকা কিভাবে তুলতে হয় ?

আপনার কাজ হলো আপনাকে  ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবে এবং তাতে ভিডিও আপলোড করতে হবে ।

শুনতে সহজ মনে হলেও একাউন্ট খোলা থেকে শুরু করে টাকা উপার্জন করা পর্যন্ত আপনাকে অনেক পরিশ্রম করতে হবে ।

ইউটিউব এর একটি ইনকাম মডেল রয়েছে যার নাম হচ্ছে মনেটিজেশন (monetization) ।  এই মনেটিজেশন প্রক্রিয়াটি চালু করার পর  যে কেউ তার আপলোড করা ভিডিও থেকে ইনকাম করতে পারে । প্রক্রিয়াটি চালু করার পর আপলোড করা ভিডিও- তে ইউটিউব এবং গুগল এডসেন্স এর তরফ থেকে কিছু বিজ্ঞাপন দেখানো হয় । এই বিজ্ঞাপন ভিডিও-এর শুরুর দিকে দেখানো হয় আবার মাঝে মধ্যে ভিডিওর ভিতরেও দেখানো হয় , যা সম্পর্কে ইতোমধ্যে আমরা অবগত আছি ।

লোকেরা যতবার আপনার আপলোড করা ভিডিও দেখবে ততবার  বিজ্ঞাপনও দেখানো হবে , ঐ হিসেবে আপনার গুগল এডসেন্স একাউন্ট এ টাকা জমা হতে থাকবে । এই টাকা আপনি গুগল এডসেন্স থেকে নিজের ব্যাঙ্ক একাউন্ট এ তুলে নিতে পারবেন ।

ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন

ইউটিউব চ্যানেল খুলতে যা যা করবেন –

  • প্রথমত ইউটিউব ওয়েবসাইট এ যেতে হবে তারপর নিজের জিমেইল একাউন্ট ডিটেলস মানে আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে ইউটিউব-এ লগ ইন করতে হবে |
  • লগ ইন করার পর , ঠিক উপরের ডান দিকে শেষে একটি ছোট্ট আইকন এর লোগো দেখবেন তাতে ক্লিক করতে হবে |
  • আইকন এ কিক করার পর আপনি একটি ছোট্ট মেনু দেখবেন ,মেনুতে আপনার নাম ও ক্রিয়েটর ষ্টুডিও বলে একটি অপশন দেখবেন ক্রিয়েটর ষ্টুডিও অপশন এ ক্লিক করুন |
  • ক্রিয়েটর ষ্টুডিও তে যাবার পর আপনি নিজের ইউটিউব চ্যানেল ড্যাশবোর্ড দেখবেন এখানে আপনি নিজের চ্যানেলের নাম এবং চ্যানেল- এর সাথে জড়িত সব অপশন পেয়ে যাবেন ।

ইউটিউব চ্যানেল চালু করার পূর্বে আপনার চ্যানেলটিকে ভেরিফাই করতে হবে।

চ্যানেল ভেরিফাই করার জন্য –

  • চ্যানেল ড্যাশবোর্ড এ গিয়ে বাম দিকে থাকা অপশনগুলি থেকে চ্যানেল এ ক্লিক করুন|
  • এরপর উপরে থাকা ভেরিফাই লিংক এ ক্লিক করুন এবং মোবাইল নম্বর দিয়ে ভেরিফাই করে নিন

এখন আপনি আপনার পছন্দ মতো ভিডিও আপলোড দিতে পারেন । তবে হে অন্য কারোর তৈরি করা ভিডিও আপলোড করলে চলবে না নিজেই  ভিডিও তৈরি  করতে হবে এবং ভালো কিছু তৈরি করার চেষ্টা করতে হবে কেননা আপনার ভিডিও মানুষের কাছে ভালো মনে হলেই তারা বেশি বেশি দেখবে এবং পাশাপাশি বিজ্ঞাপন এর দ্বারা গুগল এডসেন্স থেকে আপনি অনেক অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এতে করে আপনার চ্যানেল এ ভিসিটর এবং subscriber এর সংখ্যা বাড়বে ।

ভালো টাকা উপার্জনের জন্য কোন ধরণের ভিডিও আপলোড করব ?

যে কয়েকটি বিষয়ে ভিডিও বানালে আপনি বেশি সফল হতে পারেন তা  নিচে দেখানো হলো _

Technology – টেকনোলজি

App review -কোনো app সম্পর্কে রিভিউ

Mobile phone review – মোবাইল ফোন রিভিউ

Tutorial video – টিউটোরিয়াল ভিডিও- ও বানাতে পারেন

Blogging tips – ব্লগিং নিয়ে বানাতে পারেন

Food video – বিভিন্ন ধরণের খাবার বানিয়ে

 

Online earning tips – অনলাইনে টাকা উপর্জনের উপায় ভিডিওতে ব্যাখ্যা করতে পারেন

Gaming video – গেমিং ভিডিও -ও বানাতে পারেন

সহজ ভাষায় মানুষ আজকাল যে বিষয়ে আগ্রহী বেশি সেগুলো নিয়ে ভিডিও বানালে দ্রুত উন্নতি করা যায় ।

Monetization প্রক্রিয়া

Monetization প্রক্রিয়া চালু করুন

এর পূর্বশর্ত হলো-

  • আপনার চ্যানেল এ অন্তত ১০০০ subscriber থাকতে হবে
  • আপনার সব ভিডিওগুলো একত্রে  ৪০০০ ঘন্টা ভিউ হতে হবে

প্রক্রিয়াটি যেভাবে চালু করতে হবে _

  • ইউটিউব একাউন্ট থেকে channel icon > creator studio > channel > monetization এ যান
  • এখনে আপনি monetization চালু করার জন্য ৪টি অপশন পাবেন
  • ভালো করে প্রত্যেকটি পূর্ণ করুন
  • ২নম্বর স্টেপ এ গুগল এডসেন্সের জন্য একাউন্ট বানাতে হবে ,তারপর চ্যানেলকে এর সাথে কানেক্ট করে ফেলুন ।

(গুগল এডসেন্স এ ১০০ ডলার হওয়ার পর এডসেন্স নিজেই আপনার ব্যাঙ্ক একাউন্ট এ  টাকা ট্রান্সফার করে দিবে । ২-৩ দিনের ভিতরে তা আপনার একাউন্ট এ চলে আসবে। তবে এডসেন্স থেকে টাকা পাওয়ার জন্য প্রথমে আপনাকে গুগল এডসেন্স এর পেমেন্ট অপশন এ গিয়ে নিজের ব্যাঙ্ক একাউন্ট ডিটেলস ভালো করে দিতে হবে)

পুরো প্রক্রিয়াটি চালু করার পর আপনাকে কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

কারণ ইউটিউব এর অফিসিয়াল টার্ম আপনার চ্যানেলকে রিভিউ করে দেখবে আপনার চ্যানেলটি এবং ভিডিওগুলি সব দিক দিয়ে যোগ্য কি না।

সব ঠিক থাকলে আপনার চ্যানেলকে Youtube term monetization এর জন্য approve করে দিবে |

সবকিছু ঠিক- ঠাক পরিচালনা করতে পারলে আপনি আপনার চ্যানেলকে একটি অনন্য পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারবেন এবং  প্রতি মাসে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন ।

এর পরেও এ সংক্রান্ত কোনো কিছু জানার থাকলে কমেন্ট বক্সে জানান ।

ধন্যবাদ ।

 

Leave a Reply